শনিবার, ২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ৩.৬৭°সে
সর্বশেষ:
বিএনপি নেতাদের সঙ্গে মার্কিন উপসহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠক ভারত-বাংলাদেশ বন্ধুত্ব যেন চিরস্থায়ী হয় : প্রধানমন্ত্রী বিদ্যুতে ভর্তুকি কমাতে সমন্বয় জরুরি : কাদের ঢাকায় এসেছে মার্কিন প্রতিনিধি দল ট্রাফিক সিগন্যাল সচল করতে আইজিপিকে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ আমাকে জেলে পাঠাতে পারে: জার্মান গণমাধ্যমকে ড. ইউনূস দেশের প্রথম এনাটমি অলিম্পিয়াডে বিজয়ী চমেকের দুই শিক্ষার্থী পাবনার মাঝ নদীতে আটকে পড়া ফেরি ১২ ঘণ্টা পর উদ্ধার ইউক্রেনের যুদ্ধ থেকে যুক্তরাষ্ট্র বিপুল মুনাফা করছে: মার্কিন গণমাধ্যম বরিশালে ইন্টার্ন চিকিৎসকদের বিক্ষোভ ঢাকায় সুপ্রিম কোর্টের সম্মেলনে রাষ্ট্রপতি ও ভারতের প্রধান বিচারপতি আর্জেন্টিনার দুটি প্রীতি ম্যাচের সূচি ঘোষণা

সালাউদ্দিনের সঙ্গে বৈঠক শেষে দ্বন্দ্বের বিষয়ে মুখ খুললেন পাপন

স্পোর্টস ডেস্ক ;
দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন। তার বাইপাস সার্জারি হয়েছে। বর্তমানে তার শারীরিক অবস্থা কিছুটা উন্নতি হওয়ায় শুভাকাঙ্ক্ষীদের সঙ্গে সীমিত পরিসরে সাক্ষাৎ করছেন তিনি। মঙ্গলবার (৬ ফেব্রুয়ারি) দুপুর পৌনে ১২টায় ক্রীড়ামন্ত্রী ও বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বাফুফে বসের শারীরীক অবস্থার খোঁজ খবর নিতে তার বাসায় যান।

সেখানে সাক্ষাৎ শেষে উপস্থিত গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে কথা বলেন ক্রীড়ামন্ত্রী পাপন। এ সময় বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন তিনি। সেখানেই সালাউদ্দিনের সঙ্গে দ্বন্দ্বের বিষয়টি নিয়ে প্রশ্ন করলে ক্রীড়ামন্ত্রী ও বিসিবি সভাপতি পাপন বলেন, এত বছরের সম্পর্ক একদিনের কথায় তো নষ্ট হয় না। ছোটবেলা থেকে মাঠে যেতামই তো ওনার খেলা দেখতে। এটা তো অস্বীকার করার কোনো পথ নেই। ওনার মতো কিংবদন্তি ফুটবলার তো আর নেই। ছোটবেলা থেকেই মাঠে যেতাম খেলা দেখতে ওনার জন্য, সে জিনিসটা তো আছেই। হ্যাঁ অনেক সময় অনেক কথায় উনিও কষ্ট পেতে পারে আমিও পেতে পারি। একটা রিঅ্যাকশন করলাম দিলাম সেটা ওখানেই শেষ। সম্পর্ক তো শেষ হবে না।

ব্যক্তিগত সৌজন্য সাক্ষাতের সফর হওয়ায় ক্রীড়ামন্ত্রী পাপন একাই যান। মন্ত্রণালয় বা জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের কোনো কর্মকর্তাকে তার সঙ্গে দেখা যায়নি। ফুটবল ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক অবশ্য সালাউদ্দিনের বাসায় ছিলেন সৌজন্য সাক্ষাতের বিষয়টি সমন্বয় করার জন্য।

সালাউদ্দিন বাফুফে সভাপতি ২০০৮ সাল থেকে। নাজমুল হাসান পাপন বিসিবির সভাপতির পদে ২০১২ সাল থেকে৷ গত এক দশকে দেশের শীর্ষ দুই ব্যক্তিত্বকে এক সঙ্গে দেখা গেছে কালেভদ্রে। গত বছর দুই সংস্থার দুই শীর্ষ কর্তা কথার লড়াইয়ে নেমেছিলেন। আজকের আলোচনাটি পুরোটাই সৌজন্যমূলক৷

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

বিএনপি নেতাদের সঙ্গে মার্কিন উপসহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠক
ভারত-বাংলাদেশ বন্ধুত্ব যেন চিরস্থায়ী হয় : প্রধানমন্ত্রী
বিদ্যুতে ভর্তুকি কমাতে সমন্বয় জরুরি : কাদের
ট্রাফিক সিগন্যাল সচল করতে আইজিপিকে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ
আমাকে জেলে পাঠাতে পারে: জার্মান গণমাধ্যমকে ড. ইউনূস
দেশের প্রথম এনাটমি অলিম্পিয়াডে বিজয়ী চমেকের দুই শিক্ষার্থী

আরও খবর