সোমবার, ২৬শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ২৪.৭৮°সে
সর্বশেষ:
সুনামগঞ্জে তিন চিকিৎসক করোনায় আক্রান্ত সিলেটে ভুয়া সাংবাদিকসহ গ্রেপ্তার ৭ করোনায় ক্রীড়াবিদ শাহ আবু জাকেরের মৃত্যু গণমানুষের শিল্পী চামড়ার নির্ধারিত মূল্য উপেক্ষিত দিল্লি-রাজনীতিতে সক্রিয় হচ্ছে তৃণমূল সরকারি চাকরিজীবীদের সম্পদ বিবরণী জমা দেওয়ার জন্য নির্দেশনা টি-টোয়েন্টি সিরিজে বাংলাদেশের রেকর্ড গড়া জয় ‘কঠোরতম লকডাউনের’শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট বিতরণ কার্যক্রম স্থগিত কান্দাহার প্রদেশে তালেবানের হামলায় ঘরবাড়ি ছেড়েছে ২২ হাজার পরিবার প্রতি মাসে এক কোটি মানুষকে টিকা দেয়ার পরিকল্পনা রয়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী আথিয়াকে ফলো না করার জন্য আমি ক্ষমাপ্রার্থী: সালমান

এসএসসি-এইচএসসি: জ্ঞানভিক্তিক মূল্যায়নের পক্ষে বাউবি

ভিওএনজে ডেস্ক:
শিক্ষার্থীরা অটো প্রমোশন চাইলেও জ্ঞানভিক্তিক মূল্যায়নের পক্ষে বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় (বাউবি)। আর সে কারণে এসএসসি এবং এইচএসসির সাড়ে তিন লাখ শিক্ষার্থীকে মূল্যায়নে দুই পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে বাউবি। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুললে সংশোধিত সিলেবাসে পরীক্ষা এবং না খুললে অনলাইনে অ্যাসাইনমেন্টভিত্তিক মূল্যায়ন করা হবে। তবে কোন পদ্ধতিতে নেওয়া হবে তা নির্ভর করছে করোনা পরিস্থিতির ওপর।

জানতে চাইলে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. সৈয়দ হুমায়ুন আখতার গণমাধ্যমে বলেন, শিক্ষার্থীদের জীবন থেকে অযাতিত সময় যাতে নষ্ট না হয় এই জন্য বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করতে যাচ্ছে। সাড়ে তিন লাখ শিক্ষার্থীকে আর যাতে আটকে থাকতে না হয় সে জন্য নির্দিষ্ট সময়ে পরীক্ষা নেওয়া, এই লক্ষ্যে বিশ্ববিদ্যালয় দুই ধরনের পরিকল্পনা নিয়েছেন। প্লান ‘এ’ করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার সম্ভাবনা থাকলে সংশোধিত সিলেবাসে পরীক্ষা নেওয়া, প্লান ‘বি’ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা না গেলে অনলাইনে অ্যাসাইনমেন্টভিত্তিক মূল্যায়ন।

উপাচার্য আরো বলেন, আমাদের পরীক্ষা নেওয়ার সব রকম প্রস্তুতি ও সক্ষমতা থাকলেও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের সিদ্ধান্তে এটি বাস্তবায়ন করা যাচ্ছে না।

বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ জানান, জ্ঞানভিত্তিক মূল্যায়নই উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষার মূল কথা। করোনার প্রকোপে বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের পাবলিক পরীক্ষাগুলো এখনো নেওয়া সম্ভব হয়নি। এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষাগুলো সাধারণ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ থাকায় নেওয়া যায়নি।

তবে করোনার প্রকোপে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের সময় অনলাইনে শিক্ষার্থীদের লেখাপড়া অব্যাহত রাখা হয়েছে। যদিও শিক্ষার্থীর অংশগ্রহণ কম ছিল। তবে মডিউলভিত্তিক শিক্ষার কারণে প্রায় সব শিক্ষার্থীর লেখাপড়া সম্পন্ন এবং পরীক্ষার প্রস্তুতি রয়েছে। গত ফেব্রুয়ারি-মার্চে পরীক্ষা নেওয়ার সুযোগ থাকলেও নিয়মিত উপাচার্য না থাকায় সেটি সম্ভব হয়নি বলে জানায় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ আরো জানান, অটো প্রমোশন সমাধান নয়। তবে সরকারি সিদ্ধান্ত মেনেই বাউবি শিক্ষা বোর্ডগুলোর মতো এসএসসি এবং এইচএসসি পরীক্ষার মূল্যায়নের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখেই সিদ্ধান্ত নেবে। শিক্ষার্থীর নিরাপত্তা ও করোনার বিস্তার রোধে সবকিছু চিন্তা করেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

বাউবি প্রশাসন শিক্ষার্থীদের কখনোই সেশনজটে রাখতে চায় না। বিশ্ববিদ্যালয় একাডেমিক কাউন্সিল অনলাইন ও অনডিমান্ড এক্সামিনেশন নেওয়ার জন্য ওপেন স্কুলের সুপারিশ অনুমোদন করেছে।

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

‘কঠোরতম লকডাউনের’শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট বিতরণ কার্যক্রম স্থগিত
এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট ফের স্থগিত
অতিরিক্ত শিক্ষার্থী ভর্তি করলেই লাল তারকা
এসএসসি পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট প্রকাশ
বাড়ি ফিরেছেন ঢাবির শিক্ষার্থীরা
বাড়ি ফিরলেন রাবির ৫৫০ শিক্ষার্থী

আরও খবর


close