সোমবার, ১৬ই মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ২৪.৪°সে
সর্বশেষ:
ভূমধ্যসাগর থেকে ৩২ বাংলাদেশি উদ্ধার ইরানে সরকারবিরোধী বিক্ষোভে নিহত ৫ বাংলাদেশে এসডিজি বাস্তবায়নে অর্থের সর্বোত্তম ব্যবহার নিশ্চিতে প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান কুকুরের মাংস দিয়ে বিরিয়ানি বিক্রি, মালিক আটক উত্তীর্ণ হচ্ছেন সাত কলেজের অকৃতকার্য শিক্ষার্থীরা আমেরিকা-কানাডায় সাড়া ফেলেছে বাংলাদেশি চিকিৎসা বিজ্ঞানী ডা. মুনির হোসেনের বই বাংলাদেশির উদ্যোগে মালদ্বীপে কৃষি বিদ্যালয় উদ্বোধন ইউক্রেনের তিন যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করার দাবি রাশিয়ার বাজারের ব্যালেন্স ঠিক রাখার জন্যই সরকার ধান চাল কেনেন – খাদ্য মন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উদযাপন লক্ষে সুনামগঞ্জ যুবলীগের নানা কর্মসূচি সুনামগঞ্জ কুশিয়ারা নদীতে ৩ দিন ধরে ফেরি চলাচল বন্ধ, দুর্ভোগ চরমে কুসিক নির্বাচন: আচরণবিধি দেখার জন্য ৩ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।।নগরীতে বিজিবি মোতায়েন

মিশিগানের প্রবাসীরা পাচ্ছেন বাংলা সংস্কৃতি চর্চা কেন্দ্র

তোফায়েল রেজা সোহেল, যুক্তরাষ্ট্র :

যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগান রাজ্যর বাঙালিরা পেতে চলেছেন কালচারাল সেন্টার। বাংলা সংস্কৃতি চর্চার জন্য বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত মার্কিন চিকিৎসক ড.দেবাশীষ মৃধা ও তার সহধর্মীনি চিনু মৃধা এই সেন্টার করছেন। নাম ‘মৃধা বেঙ্গলি কালচারাল সেন্টার’। এটির অবস্থান ওয়ারেন শহরের ৯ মাইলের ২২০২১ মেমফিস এভিনিউয়ে। জানা গেছে, ১১ জুন আনুষ্ঠানিকভাবে সেন্টারের উদ্বোধন করা হবে।

ড. দেবাশীষ মৃধা এই সেন্টার গড়তে তিন লাখ ডলার খচর করেছেন। এখন ভবনটির সংস্কার কাজ চলছে। মৃধা পরিবার জানান,সেন্টারের জন্য আরও দুই লাখ ডলারের বাজেট রয়েছে।

দেবাশীষ মৃধার বাড়ি বাংলাদেশের পিরোজপুর জেলায়। তিনি ইউক্রেনের একটি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডাক্তারি পাশ করে ১৯৯১ সালে আসেন আমেরিকায়। তিনি সেন্ট্রাল মিশিগান ইউনির্ভাসিটির এসোসিয়েট প্রফেসর। এছাড়া সাগিনা সিটিতে তার নিজস্ব ক্লিনিক রয়েছে।

মৃধা বেঙ্গলি কালচারাল সেন্টারে থাকছে, বাংলা ভাষা শিক্ষার স্কুল, বাংলা গানের স্কুল, নাচের স্কুল, শেখানো হবে গিটার বাজানো। এই সেন্টারে থাকছে বাংলা সাহিত্য সংসদ, বসবে কবিতা পাঠের আসর। উদযাপন করা হবে জাতীয় দিবসগুলো। আয়োজন করা হবে বাংলা মেলার।

সরেজমিন দেখা গেছে, সেন্টারের মিলনায়তনটি খুবই চমৎকার। এখানে জন্মদিন, বিবাহবার্ষিকী পালন, সভা-সেমিনারসহ ছোটখাটো অনুষ্ঠান করার বাড়তি সুবিধা রয়েছে। সেন্টারের পাশেই রয়েছে একটি মাঠ এবং পার্ক। ছোট্ট এই মাঠে টেনিস ও বলিউবল খেলতে পারবে। পার্কে শিশু-কিশোররা আনন্দ বিনোদন করতে পারবে।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে ড.দেবাশীষ মৃধা বলেন, এই বিদেশের মাটিতে বাংলা ভাষা, সংস্কৃতি ও দেশের ইতিহাসকে তুলে ধরার জন্যই এই প্রয়াস। এছাড়া এখানে আমাদের প্রজন্ম বেড়ে উঠছে। তারা বাংলা সংস্কৃতি সম্পর্কে শেখার কোনো মাধ্যম পাচ্ছে না। তাদেরকে নিজ জাতির সংস্কৃতি চর্চায় মনোনীবেশ করার জন্য এই কালচারাল সেন্টার।

তিনি জানান, এটি কমিটি দ্বারা পরিচালিত হবে। এটি অলাভজনক একটি প্রতিষ্ঠান। সেন্টারটিতে ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে বাংলা শিক্ষা এবং বাংলা মিউজিক্যাল সেশন। স্কুলটির পরিচালক ও প্রতিষ্ঠাতা হলেন মিশিগানের সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব আকরাম হোসেন। তিনি একজন বিশিষ্ট রবীন্দ্র সংগীত শিল্পী এবং বিখ্যাত গিটার বাদক। আগামী ১১ জুন সেন্টারের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হবে।

Expatriates in Michigan are getting a Bengali culture center

Tofail Reza Sohail, United States:

Bengalis in the US state of Michigan are going to get a cultural center. Dr. Debashish Mridha, an American doctor of Bangladeshi descent and his wife Chinu Mridha are doing this center for the practice of Bengali culture. Name ‘Mridha Bengali Cultural Center’. It is located at 22021 Memphis Avenue, 9 miles from the city of Warren. It is learned that the center will be officially inaugurated on June 11.

Dr. Debashish Mridha has spent three lakh dollars to build this center. Now the renovation work of the building is going on. The Mridha family said the center has an additional budget of two lakh dollars.

Debashish Mridha’s home is in Pirojpur district of Bangladesh. He came to America in 1991 after graduating from a university in Ukraine. He is an Associate Professor at the University of Central Michigan. It also has its own clinic in Sagina City.

Mridha is staying at Bengali Cultural Center, Bangla language school, Bangla song school, dance school, guitar playing will be taught. In this center there is Bangla Sahitya Sangsad, there will be poetry reading session. National days will be celebrated. Bangla Mela will be organized.

As you can see, the auditorium of the center is very nice. There are additional facilities for holding small events including birthdays, wedding anniversaries, meetings and seminars. There is a field and park next to the center. You can play tennis and volleyball in this small field. Children and teenagers will be able to have fun in the park.

Asked about this, Dr. Debashish Mridha said, “This is an attempt to highlight the Bengali language, culture and history of the country in this foreign land.” Besides, our generation is growing up here. They are not getting any means to learn about Bengali culture. This cultural center to nominate them in the culture of their own nation.

He said it would be managed by the committee. It is a non-profit organization. Bangla education and Bangla musical sessions have already started at the center. The director and founder of the school is Akram Hossain, a cultural figure from Michigan. He is a prominent Rabindra Sangeet artist and famous guitarist. The official inauguration of the center will be held on June 11.

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

ভূমধ্যসাগর থেকে ৩২ বাংলাদেশি উদ্ধার
ইরানে সরকারবিরোধী বিক্ষোভে নিহত ৫
বাংলাদেশে এসডিজি বাস্তবায়নে অর্থের সর্বোত্তম ব্যবহার নিশ্চিতে প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান
আমেরিকা-কানাডায় সাড়া ফেলেছে বাংলাদেশি চিকিৎসা বিজ্ঞানী ডা. মুনির হোসেনের বই
বাংলাদেশির উদ্যোগে মালদ্বীপে কৃষি বিদ্যালয় উদ্বোধন
ইউক্রেনের তিন যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করার দাবি রাশিয়ার

আরও খবর


close