শুক্রবার, ২৬শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ২৮.৪২°সে
সর্বশেষ:
প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিসেবে কমলা হ্যারিসকে ‘পছন্দ নয়’ ওবামার কমলা প্রেসিডেন্ট হলে দেশকে ধ্বংস করে দেবেন: ট্রাম্প কোটা আন্দোলন: সহিংসতায় নিহতদের পরিবারের দায়িত্ব নেবেন প্রধানমন্ত্রী জরুরি নন, কর্মী বাংলাদেশ ছাড়তে বলেছে যুক্তরাষ্ট্র হেলিকপ্টার থেকে গ্যাস-সাউন্ড গ্রেনেড নিক্ষেপ হয়েছে, গুলি করা হয়নি: র‍্যাব বাংলাদেশে শিগগিরই শান্তি ফিরবে, আশা ভারতের কোটা আন্দোলন ঘিরে সহিংসতা:স্বজনদের কাছে হস্তান্তর ৮৫ লাশ, চিকিৎসাধীন ২১৮ স্বাধীনতাবিরোধী শক্তি দেশব্যাপী ধ্বংসলীলা চালিয়েছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কোটা আন্দোলন ঘিরে সংঘর্ষ : রাজধানীতে বেওয়ারিশ ২১ লাশ দাফন শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে পাশে দাঁড়ালেন কলকাতার নায়িকা আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সাথে বসার ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে ব্রিফিং করবেন আইনমন্ত্রী ২৫ জুলাই পর্যন্ত এইচএসসির সব পরীক্ষা স্থগিত

মিয়ানমার ইস্যু নিয়ে বাংলাদেশকে যা বলল যুক্তরাষ্ট্র

অনলাইন ডেস্ক:
রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর এক চিঠিতে এ কথা জানিয়েছে। এ বিষয়ে প্রশ্ন করার প্রায় এক সপ্তাহ পর জবাব দিয়েছেন মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র ম্যাথিউ মিলার। মঙ্গলবার মিয়ানমার ইস্যুতে বাংলাদেশকে সহায়তা করতে দৃঢ় প্রতিশ্রুতির কথা জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

বিবৃতিতে যুক্তরাষ্ট্র জানিয়েছে, মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা কয়েক লাখ রোহিঙ্গাকে আশ্রয়দানকারী দেশ হিসেবে বাংলাদেশকে আগের মতো এবারও সহায়তা করবে তারা।

এর আগে ১ ফেব্রুয়ারি ওয়াশিংটনে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের নিয়মিত ব্রিফিংয়ে মিয়ানমারে জান্তা বাহিনীর সঙ্গে বিদ্রোহী গোষ্ঠীগুলোর সংঘাত এবং বাংলাদেশে কয়েক লাখ রোহিঙ্গার আশ্রয়ের বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান জানতে চাওয়া হয়। প্রশ্নের প্রায় এক সপ্তাহ পর এ বিষয়ে লিখিত জবাব দিলেন ম্যাথিউ মিলার।

মিলার বলেন, মিয়ানমারে সামরিক অভ্যুত্থানের কারণে মানবিক সংকটের পাশাপাশি আঞ্চলিক নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতা নষ্ট হচ্ছে বলেও মনে করে যুক্তরাষ্ট্র। বেসামরিক নাগরিকদের ওপর দমন-পীড়ন বন্ধে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে এগিয়ে আসার আহ্বান জানায় দেশটি।

ইতোমধ্যে মিয়ানমারের জান্তা ও বিদ্রোহী গোষ্ঠী আরাকান আর্মির সংঘাতের আঁচ এসে পড়েছে বাংলাদেশে। মিয়ানমার থেকে ছোড়া গোলায় প্রাণ হারিয়েছেন এক বাংলাদেশি নাগরিক। সংঘর্ষ আর ওপার থেকে ভেসে আসা তীব্র গোলাবারুদের শব্দে আতঙ্কে দিন কাটছে মিয়ানমার সীমান্তে থাকা জনপদগুলো। আরাকান আর্মির সঙ্গে চলমান সংঘাতে টিকতে না পেরে বাংলাদেশে ইতোমধ্যে আশ্রয় নিয়েছে মিয়ানমারের বর্ডার গার্ড পুলিশের দুই শতাধিক সদস্য।

আরাকান আর্মির মতো রোহিঙ্গা বিদ্রোহীদের অ্যালায়েন্স সংগঠন আরসাও ২০১৭ সালে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর সঙ্গে সংঘাতে জড়িয়েছিল। কিন্তু মিয়ানমার সেনা চৌকিতে অতর্কিত হামলার পর মাত্র একদিনেই পরাজয় স্বীকার করে নেয় আরসা। আর তার ফল হিসাবে ৮ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা প্রাণ বাঁচাতে বাংলাদেশে চলে আসতে বাধ্য হয়।

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিসেবে কমলা হ্যারিসকে ‘পছন্দ নয়’ ওবামার
কমলা প্রেসিডেন্ট হলে দেশকে ধ্বংস করে দেবেন: ট্রাম্প
কোটা আন্দোলন: সহিংসতায় নিহতদের পরিবারের দায়িত্ব নেবেন প্রধানমন্ত্রী
জরুরি নন, কর্মী বাংলাদেশ ছাড়তে বলেছে যুক্তরাষ্ট্র
হেলিকপ্টার থেকে গ্যাস-সাউন্ড গ্রেনেড নিক্ষেপ হয়েছে, গুলি করা হয়নি: র‍্যাব
বাংলাদেশে শিগগিরই শান্তি ফিরবে, আশা ভারতের

আরও খবর