শনিবার, ২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ৫.১৯°সে
সর্বশেষ:
ট্রাফিক সিগন্যাল সচল করতে আইজিপিকে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ আমাকে জেলে পাঠাতে পারে: জার্মান গণমাধ্যমকে ড. ইউনূস দেশের প্রথম এনাটমি অলিম্পিয়াডে বিজয়ী চমেকের দুই শিক্ষার্থী পাবনার মাঝ নদীতে আটকে পড়া ফেরি ১২ ঘণ্টা পর উদ্ধার ইউক্রেনের যুদ্ধ থেকে যুক্তরাষ্ট্র বিপুল মুনাফা করছে: মার্কিন গণমাধ্যম বরিশালে ইন্টার্ন চিকিৎসকদের বিক্ষোভ ঢাকায় সুপ্রিম কোর্টের সম্মেলনে রাষ্ট্রপতি ও ভারতের প্রধান বিচারপতি আর্জেন্টিনার দুটি প্রীতি ম্যাচের সূচি ঘোষণা লিবিয়ায় আটক ১৪৪ বাংলাদেশি দেশে ফিরলেন গাজার আবাসিক এলাকায় ইসরাইলের হামলা, নিহত ৪০ শিশুর সামনে ধূমপান করলেই জরিমানা বাবার পদবি মুছে ফেললেন বারাক ওবামার মেয়ে

মসজিদের জায়গায় রামমন্দির, সত্য বলায় ব্রিটিশ পার্লামেন্টে তোপের মুখে বিবিসি

অনলাইন ডেস্ক:
বিবিসিকে পক্ষপাতদুষ্ট বলে পার্লামেন্টে দাঁড়িয়ে কটাক্ষ করলেন ব্রিটিশ এমপি বব ব্ল্যাকম্যান। তার মতে, একপেশেভাবে রামমন্দির উদ্বোধনের সম্প্রচার করেছে ব্রিটিশ সংবাদসংস্থা। তাদের উচিত, বিশ্বে কী ঘটছে সেটা সঠিকভাবে তুলে ধরা উচিত। উল্লেখ্য, ২২ জানুয়ারি অযোধ্যায় রামমন্দিরের উদ্বোধনের সরাসরি সম্প্রচার হয় গোটা বিশ্বে। সম্প্রচারকারীদের তালিকায় ছিল বিবিসির নামও।

ঠিক কী অভিযোগ এনেছেন ব্রিটিশ এমপি? পার্লামেন্টে দাঁড়িয়ে ববের অভিযোগ, ‘গত সপ্তাহে অযোধ্যা রামমন্দিরে রামলালার প্রাণপ্রতিষ্ঠা হয়েছে। বিশ্বের সকল হিন্দুর কাছে এটা অত্যন্ত আনন্দের। কিন্তু দুঃখের বিষয়, বিবিসির সম্প্রচারে বলা হয়েছে মন্দিরের নির্মাণস্থলটি আসলে একটি মসজিদের ধ্বংসাবশেষ। বিবিসি ভুলে গিয়েছে দুহাজার বছরেরও বেশি সময় ধরে ওই জায়গায় মন্দিরই ছিল। তাছাড়া মুসলিমদেরও অযোধ্যায় আলাদা করে পাঁচ একর জমি দেয়া হয়েছে মসজিদ তৈরির জন্য।’

রামমন্দির (উদ্বোধনের সম্প্রচারে বিবিসির পক্ষপাতিত্ব নিয়ে আলোচনা করতে চেয়ে অন্য এমপিদের কাছে সময়ও চান বব। তার মতে, গোটা বিশ্বে কী কী ঘটছে সেটা সঠিকভাবে মানুষের কাছে তুলে ধরতে পারছে না বিবিসি। সংবাদসংস্থার এমন পক্ষপাতদুষ্ট আচরণ নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা উচিত সরকারের। নিজের এক্স হ্যান্ডেলেও ঋষি সুনাকের দলের এমপি বলেন, ‘রামমন্দির উদ্বোধন নিয়ে বিবিসি যেভাবে সম্প্রচার করেছে সেটা নিয়ে উদ্বিগ্ন অন্যান্য এমপিরাও। কারণ বিবিসি সম্প্রচারের জেরে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিঘ্নিত হয়েছে।’

উল্লেখ্য, বিবিসির বিরুদ্ধে আগেও ভারতে ‘পক্ষপাতিত্বের’ অভিযোগ উঠেছে। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে নিয়ে তৈরি তথ্যচিত্র ঘিরে বিতর্কের ঝড় উঠেছিল গোটা দেশে। তবে সেবার বিবিসির পাশেই ছিল ব্রিটিশ সরকার। তাদের তরফে সাফ বার্তা দেয়া হয়, ‘সংবাদমাধ্যমকে কোনও ভয় ছাড়া কাজ করতে দেয়া হোক। এই স্বাধীনতাই আসল চাবিকাঠি। আর সেটা আমরা সারা পৃথিবীর সমস্ত বন্ধুকেও জানিয়ে দিতে চাই। যার মধ্যে ভারত সরকারও রয়েছে।’ তবে এবার পালটে গেল সেই ছবিটা। বিবিসির নিন্দা শুরু হল ব্রিটিশ পার্লামেন্টের অন্দরেই।

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

ট্রাফিক সিগন্যাল সচল করতে আইজিপিকে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ
আমাকে জেলে পাঠাতে পারে: জার্মান গণমাধ্যমকে ড. ইউনূস
পাবনার মাঝ নদীতে আটকে পড়া ফেরি ১২ ঘণ্টা পর উদ্ধার
ইউক্রেনের যুদ্ধ থেকে যুক্তরাষ্ট্র বিপুল মুনাফা করছে: মার্কিন গণমাধ্যম
ঢাকায় সুপ্রিম কোর্টের সম্মেলনে রাষ্ট্রপতি ও ভারতের প্রধান বিচারপতি
আর্জেন্টিনার দুটি প্রীতি ম্যাচের সূচি ঘোষণা

আরও খবর