শুক্রবার, ২৬শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ২৮.৪৪°সে
সর্বশেষ:
প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিসেবে কমলা হ্যারিসকে ‘পছন্দ নয়’ ওবামার কমলা প্রেসিডেন্ট হলে দেশকে ধ্বংস করে দেবেন: ট্রাম্প কোটা আন্দোলন: সহিংসতায় নিহতদের পরিবারের দায়িত্ব নেবেন প্রধানমন্ত্রী জরুরি নন, কর্মী বাংলাদেশ ছাড়তে বলেছে যুক্তরাষ্ট্র হেলিকপ্টার থেকে গ্যাস-সাউন্ড গ্রেনেড নিক্ষেপ হয়েছে, গুলি করা হয়নি: র‍্যাব বাংলাদেশে শিগগিরই শান্তি ফিরবে, আশা ভারতের কোটা আন্দোলন ঘিরে সহিংসতা:স্বজনদের কাছে হস্তান্তর ৮৫ লাশ, চিকিৎসাধীন ২১৮ স্বাধীনতাবিরোধী শক্তি দেশব্যাপী ধ্বংসলীলা চালিয়েছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কোটা আন্দোলন ঘিরে সংঘর্ষ : রাজধানীতে বেওয়ারিশ ২১ লাশ দাফন শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে পাশে দাঁড়ালেন কলকাতার নায়িকা আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সাথে বসার ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে ব্রিফিং করবেন আইনমন্ত্রী ২৫ জুলাই পর্যন্ত এইচএসসির সব পরীক্ষা স্থগিত

বেসরকারি ব্যাংককর্মীদের সর্বজনীন পেনশনে অংশ নেওয়ার নির্দেশ

অনলাইন ডেস্ক:
দেশের সব বেসরকারি ব্যাংকের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সর্বজনীন পেনশন স্কিমে অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।
বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ এ সংক্রান্ত নির্দেশনা দিয়ে সব ব্যাংকের প্রধান নির্বাহী বরাবর চিঠি পাঠিয়েছে।

নির্দেশনায় বলা হয়, ‘সর্বস্তরের জনগণকে একটি টেকসই ও সুসংগঠিত সামাজিক নিরাপত্তা বলয়ে অন্তর্ভুক্তির উদ্দেশ্য পূরণকল্পে ব্যাংকগুলোয় (রাষ্ট্র মালিকানাধীন বাণিজ্যিক ব্যাংক ও বিশেষায়িত ব্যাংক ব্যতীত) কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সর্বজনীন পেনশন স্কিমে অংশগ্রহণে উদ্বুদ্ধ করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে নির্দেশনা দেওয়া হলো।’

দেশের সর্বস্তরের জনগণকে বিশেষ করে বয়স্ক জনগোষ্ঠীকে টেকসই ও সুসংগঠিত সামাজিক নিরাপত্তা বলয়ের আওতাভুক্ত করার লক্ষ্যে একাদশ জাতীয় সংসদে ‘সর্বজনীন পেনশন ব্যবস্থাপনা আইন, ২০২৩’ পাস করা হয়। এরপর ২০২৩ সালের ৩১ জানুয়ারি সর্বজনীন পেনশন ব্যবস্থাপনা আইনটিতে সম্মতি দেন তৎকালীন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। পরে ১৩ আগস্ট আইনটির বিধিমালা জারি করা হয়।

সর্বজনীন পেনশন স্কিম বিধিমালায় ধারা (৪)-এর উপধারা (৩)-এ বলা হয়েছে, সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির আওতাভুক্ত ব্যক্তিরা এই কর্মসূচিতে অংশ নিতে পারবেন। তবে শর্ত হচ্ছে-এ স্কিমে অংশ নেওয়ার আগে সংশ্লিষ্ট সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির সুবিধা সমর্পণ করতে হবে।

এ প্রক্রিয়ার সঙ্গে জড়িত অর্থ বিভাগের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা জানান, সরকার আগামী দিনে পর্যায়ক্রমে সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচি থেকে বেরিয়ে আসবে। সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির চাপ তুলে দিয়ে সর্বজনীন পেনশন স্কিমে নিয়ে আসা হবে।

আইন অনুযায়ী, সর্বজনীন পেনশন কর্মসূচির আওতায় চারটি স্কিম রয়েছে। প্রথম হচ্ছে প্রবাসী স্কিম, প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য। দ্বিতীয় হচ্ছে প্রগতি স্কিম, এটি বেসরকারি চাকরিজীবী ও প্রতিষ্ঠানের জন্য। তৃতীয় হচ্ছে সুরক্ষা স্কিম, এটি স্বকর্মে নিয়োজিত ব্যক্তিদের জন্য। চতুর্থ হচ্ছে সমতা স্কিম, এটি স্বল্প-আয়ের নাগরিকদের জন্য।

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিসেবে কমলা হ্যারিসকে ‘পছন্দ নয়’ ওবামার
কমলা প্রেসিডেন্ট হলে দেশকে ধ্বংস করে দেবেন: ট্রাম্প
কোটা আন্দোলন: সহিংসতায় নিহতদের পরিবারের দায়িত্ব নেবেন প্রধানমন্ত্রী
জরুরি নন, কর্মী বাংলাদেশ ছাড়তে বলেছে যুক্তরাষ্ট্র
হেলিকপ্টার থেকে গ্যাস-সাউন্ড গ্রেনেড নিক্ষেপ হয়েছে, গুলি করা হয়নি: র‍্যাব
বাংলাদেশে শিগগিরই শান্তি ফিরবে, আশা ভারতের

আরও খবর