বৃহস্পতিবার, ১৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ২৭.৬৩°সে

মিরসরাইয়ে দুই সন্তানের জননী পরকীয়া প্রেমিকের সঙ্গে উধাও

 

হায়দার আলী (স্টাফ রিপোর্টার) চট্টগ্রাম

চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে দুই সন্তানের জননী পরকীয়া প্রেমিকের সঙ্গে উধাও হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। পরকীয়া প্রেমিক হলেন- মোঃ আকবর (৩২)। আকবর হলেন- চট্টগ্রামের মিরসরাই উপজেলার ওয়াহেদপুর ইউনিয়নের খাজুরিয়া এলাকার নুরুল হুদার ছেলে। দুই সন্তানের জননী হলেন- মিরসরাই থানাধীন ওয়াহেদপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ ওয়াহেদপুর এলাকার সংযুক্ত আরব আমিরাত প্রবাসী মোঃ মিজানুল ইসলামের স্ত্রী এবং মিরসরাই উপজেলার খেয়া ছড়া ইউনিয়নের পূর্ব মসজিদিয়া গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য সিরাজ উদ্দৌলার একমাত্র মেয়ে।

২ জুন বৃহস্পতিবার গভীর রাতে এ উপজেলার ওয়াহেদপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ ওয়াহিদপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এসময় দুই সন্তানের জননী গৃহবধূ তার দেড় বছর বয়সী শিশু সন্তান, বার ভড়ি স্বর্ণালংকার ও নগদ ৫০ হাজার টাকা সাথে নিয়ে পালিয়ে যান। এ ঘটনায় গৃহবধূ ও মোঃ আকবরকে অভিযুক্ত করে মিরসরাই থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

জানা যায়, “উপজেলার দক্ষিণ ওয়াহেদপুর গ্রামের মৃত দেলোয়ার হোসেনের পুত্র দুবাই প্রবাসী মিজানুল ইসলামের সাথে ৯ বছর আগে পাশ্ববর্তী খৈয়াছড়া ইউনিয়নের পূর্ব মসজিদিয়া গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য সিরাজ উদ্দৌলার একমাত্র কন্যার বিবাহ হয়। তাদের সংসারে ৭ বছর বয়সী একটি ছেলে ও দেড় বছর বয়সী একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। গত ৩ মাস যাবত ও-ই গৃহবধূর স্বামী মিজানুল ছুটিতে আসে। বিদেশে থাকা অবস্থায় ওই গৃহবধূর দূর সম্পর্কের চাচাতো ভাই আকবর তাদের ঘরে আসা-যাওয়া করতো। এ বিষয়ে স্বামী ও তার পরিবার এ-ই ২ সন্তানের জননীকে বারবার নিষেধ করা হলে সে আরো বেপরোয়া হয়ে উঠে।

গত বৃহস্পতিবার রাতে ও-ই গৃহবধূ ও তার স্বামী তাদের দুই সন্তান নিয়ে ঘুমিয়ে পড়লে গভীর রাতে এ-ই গৃহবধূ দেড় বছর বয়সী শিশু সন্তানসহ স্বর্ণালংকার ও নগদ টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় পালিয়ে যাওয়া গৃহবধূর স্বামী মিজানুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন- “আমার শিশু সন্তানসহ স্বর্ণালংকার ফিরে পেতে চাই। পাশাপাশি পলাতক স্ত্রীর উপযুক্ত বিচার দাবী করছি।”
পালিয়ে যাওয়া ২ সন্তানের জননী গৃহবধূর বাবা সিরাজ উদ্দৌলাও বলেন- আমার মেয়ে তার সুখের সংসার ছেড়ে বখাটে আকবরের সাথে পালিয়ে যাওয়ায় অনেক কষ্ট পেয়েছি। আমি আমার একমাত্র মেয়েকে চাই না, আমার নাতনিকে ফেরত পেতে চাই।”

এ ঘটনায় ওয়াহেদপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ফজলুল কবির ফিরোজ সাংবাদিকদের জানান, “একটি পরিবারের তিলে তিলে গড়ে তোলা স্বপ্ন ও সম্মান এই ঘটনায় সব নষ্ট হয়ে যায়। এটি খুবই দুঃখ জনক। যা কাম্য নয়।”

মিরসরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ কবির হোসেন গণমাধ্যমে বলেন, “পরকীয়া প্রেমের টানে গৃহবধূ পালিয়ে যাওয়ার ঘটনায় অভিযোগ পেয়েছি। এ বিষয়ে উপ-পরিদর্শক মোঃ রাকিবুল হাসানকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। অতি শীঘ্রই তদন্তে এর রহস্য উদঘাটন করে আইনগতভাবে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

In Mirsarai, a mother of two disappeared with a foreign lover

Haider Ali (Staff Reporter) Chittagong

A mother of two has gone missing in Chittagong’s Mirsarai with her ex-boyfriend. The foreign lover is Md. Akbar (32). Akbar is the son of Nurul Huda of Khajuria area of ​​Wahedpur union in Mirsarai upazila of Chittagong. The mother of two children is the wife of Md. Mizanul Islam, an expatriate from UAE in South Wahedpur area of ​​Wahedpur union under Mirsarai police station and the only daughter of Siraj Uddaula, a former UP member of East Masjidia village of Kheya Chhara union of Mirsarai upazila.

The incident took place at Dakshin Wahidpur village in Wahedpur union of the upazila on Thursday night. The housewife, a mother of two, fled with her one-and-a-half-year-old child, twelve gold ornaments and Rs 50,000 in cash. A case has been filed at Mirsarai police station accusing the housewife and Mohammad Akbar of the incident.

It is learned that Mizanul Islam, a Dubai expatriate, son of late Delwar Hossain of Dakshin Wahedpur village of the upazila got married to his only daughter Siraj Uddaula, a former UP member of East Masjidia village of Khayachara union, 9 years ago. They have a 7-year-old son and a 1.5-year-old daughter in their family. Mizanul, the housewife’s husband, has been on leave for the last three months. While abroad, the housewife’s distant cousin Akbar used to come and go to their house. When the husband and his family repeatedly forbade the mother of these two children, she became more reckless.

Last Thursday night, the housewife and her husband fell asleep with their two children. In the middle of the night, the housewife fled with her one and a half year old child, gold ornaments and cash. Mizanul Islam, the husband of the fugitive housewife, told reporters: “I want to get back the gold ornaments with my children. Besides, I am demanding proper justice for the fugitive wife. ”
Siraj Uddaula, a housewife and mother of two children who ran away, said: I don’t want my only daughter, I want my granddaughter back. “

Fazlul Kabir Firoz, chairman of Wahedpur Union, told reporters on the occasion, This is very sad. Which is not desirable. “

Officer-in-Charge (OC) of Mirsarai Police Station Mohammad Kabir Hossain told the media, Sub-Inspector Md. Rakibul Hasan has been given the responsibility in this regard. An investigation will be launched soon and legal action will be taken. ”

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

জাতিসংঘ প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বিএনপির বৈঠক
গার্ডার দুর্ঘটনা: ক্রেনচালকসহ ৯ জন গ্রেফতার
শৈলকুপায় হাতুড়িপেটা করে হত্যা : ৩ জনের মৃত্যুদণ্ড
সাংবাদিককে হত্যাচেষ্টার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ
বাংলাদেশে স্বর্ণের দাম কমলো
বাংলাদেশ সংকটের মধ্যে নেই: আইএমএফ

আরও খবর


close