বৃহস্পতিবার, ১৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ২৮.২৭°সে

নেত্রকোণায় বাস-ট্রাক সংঘর্ষে চালক-সুপারভাইজার নিহত

নেত্রকোণা  সংবাদদাতা:

নেত্রকোণায় বাস-ট্রাক মুখোমুখি সংঘর্ষে চালক ও সুপারভাইজার নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন আটজন। সোমবার (২৩ মে) সকালে নেত্রকোনা-ময়মনসিংহ সড়কের সদর উপজেলার চল্লিশা ইউনিয়নের নুরুলিয়া গ্রামে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত বাসচালক সবুজ মিয়া (৫০) ময়মনসিংহের নান্দাইল এলাকার বাসিন্দা, আর সুপারভাইজার সোহেল মিয়া (৩০) সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলার চাঁন মিয়ার ছেলে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, নেত্রকোণা থেকে অতিরিক্ত ধানবোঝাই একটি ট্রাক ময়মনসিংহ যাচ্ছিল। পথে চল্লিশায় পৌঁছলে বিপরীত দিক থেকে আসা শাহপরাণ পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়।

পরে স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিলে গেলে দায়িত্বরত চিকিৎসক চালক ও সুপারভাইজারকে মৃত ঘোষণা করেন।

সদর থানা পুলিশের এসআই জহুরুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে দুর্ঘটনাকবলিত গাড়ি দুটি সরিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করা হয়।

নেত্রকোণা ফায়ার সার্ভিসের সহকারী উপপরিচালক মোহাম্মদ মামুন বলেন, ‘আমরা ১০ জনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠিয়েছি। হাসপাতালে নেওয়ার পথে একজন এবং পরে আরও একজন মারা যান। এ ছাড়াও রেকার না থাকায় কেটে অন্য একজনকে বের করতে দেরি হয়।’

Driver-supervisor killed in bus-truck collision in Netrokona

Netrokona Correspondent:

The driver and supervisor were killed in a head-on collision between a bus and a truck at Netrokona. Eight people were injured at the time. The accident took place at Nurulia village of Challisha union in Sadar upazila of Netrokona-Mymensingh road on Monday (May 23) morning.

The deceased have been identified as Sabuj Mia, 50, a resident of Nandail area of ​​Mymensingh, and Supervisor Sohail Mia, 30, son of Chan Mia of Dharmapasha upazila in Sunamganj.

According to local and police sources, a truck carrying extra paddy was going to Mymensingh from Netrokona. On the way to Chalisa, a passenger bus of Shahparan Paribahan coming from the opposite direction collided head on.

When the locals rescued the injured and took them to the hospital, the doctor on duty declared the driver and supervisor dead.

Sadar police SI Zahurul Islam said the situation was normalized after receiving the news and removing the two vehicles involved in the accident.

Netrokona Fire Service Assistant Deputy Director Mohammad Mamun said, “We rescued 10 people and sent them to the hospital. One died on the way to the hospital, and another died later. Besides, it is too late to cut out the other one as there is no wrecker. ‘

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

২৪ আগস্ট শ্রীলংকায় ফিরে আসছেন গোতাবায়া রাজাপাকসে
জাতিসংঘ প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বিএনপির বৈঠক
গার্ডার দুর্ঘটনা: ক্রেনচালকসহ ৯ জন গ্রেফতার
শৈলকুপায় হাতুড়িপেটা করে হত্যা : ৩ জনের মৃত্যুদণ্ড
সাংবাদিককে হত্যাচেষ্টার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ
বাংলাদেশে স্বর্ণের দাম কমলো

আরও খবর


close