মঙ্গলবার, ১৫ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ২৪.২৮°সে
সর্বশেষ:
বাংলাদেশ আইএলও পরিচালনা পর্ষদের সদস্য পদে নির্বাচিত শারুন-নুসরাতের যোগাযোগ খতিয়ে দেখা হচ্ছে বিমানের দুই কর্মী ও সহযাত্রীদের ধস্তাধস্তির ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্রের ওকলাহামায় জরুরি অবতরণ সোমালিয়ায় সেনা অভিযানে ৪৮ ঘণ্টায় অর্ধশতাধিক আল-শাবাব যোদ্ধা নিহত মিয়ানমারের জান্তাবিরোধী আন্দোলনকারীরা রোহিঙ্গাদের সমর্থন ইসরাইলের নতুন প্রধানমন্ত্রীকে মোদির অভিনন্দন সরকারি গাড়ি ও তেল খরচ করে ব্যক্তিগত কাজে ব্যবহার উপজেলা চেয়ারম্যান চীনা বন্দরে বাংলাদেশসহ ১১টি দেশ থেকে হিমায়িত খাদ্য ‘আমদানি বন্ধ’ ১৯ জুন থেকে দেশে চীনের সিনোফার্ম ও বেলজিয়ামের টিকা দেওয়া হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী ইউরোর মতো বড় মঞ্চে ৫০ গজ দূর থেকে চোখ জুড়ানো গোল নাসির-অমিসহ পাঁচজন গ্রেপ্তার হওয়া আমি অনেক খুশি:পরীমনির নতুন প্রধানমন্ত্রী পেতে যাচ্ছে ইসরায়েল

ভাতার কার্ড ফেরত দেওয়া লাজিনা বেওয়াকে সংবর্ধনা

বগুড়া প্রতিনিধি:

বগুড়ার আদমদীঘিতে লাজিনা বেওয়া নামে এক বিধবা তার ভাতার কার্ড ফেরত দিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছেন। প্রতিশ্রুতি অনুসারে সংসারে সচ্ছলতা আসায় তিনি এ সিদ্ধান্ত নেন।তার এ মহৎ উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে উপজেলার ছাতিয়ানগ্রাম ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম তাকে সংবর্ধনা দিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ছাতিয়ানগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়েছে।

স্বজনরা জানান, লাজিনা বেওয়া বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার ছাতিয়ানগ্রাম ইউনিয়নের ধুলাতইল গ্রামে মৃত হাদিস আলীর স্ত্রী। মাত্র ১০ শতক সম্পত্তি রেখে স্বামী ১৯৮২ সালে মারা যান। মাত্র ২২ বছর বয়সে বিধবা লাজিনা বেওয়া ছোট দুটি মেয়ে ও ছয় মাস বয়সের ছেলে মামুনকে আঁকড়ে নতুন করে বেঁচে থাকার স্বপ্ন দেখতে শুরু করেন।

সংসারে একটু সচ্ছলতা ফেরাতে ১৯৯৮ সালে বিধবা ভাতার তালিকাভুক্ত হন। তবে তখন তিনি স্থির করেন সংসারে সচ্ছলতা ফিরলে তিনি ভাতার কার্ড ফেরত দেবেন। অনেক কষ্টের মাঝে দুটি মেয়েকে বিয়ে দেন। একমাত্র ছেলে মামুনুর রশিদ মামুন লেখাপড়া শেষ করেন। সংসারের হাল ধরতে সরকারিভাবে (জি টু জি পদ্ধতিতে) ২০১৪ সালে মাত্র ৩৩ হাজার টাকা খরচে মালয়েশিয়ায় যান।

তিনি দুই বছর পর দেশে ফিরে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক পদে চাকরি লাভ করেন। ছেলে আয় করায় লাজিনা বেওয়ার সংসারে অভাব দূর হয়ে যায়, আসে সচ্ছলতা। তাই তিনি সিদ্ধান্ত অনুসারে তার বিধবা ভাতার কার্ড ফেরত দেওয়ার আবেদন করেছেন। কষ্টের দিনে এমন সহযোগিতা পাওয়ায় তিনি সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।

উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা শরিফ উদ্দিন জানান, দেশে এমন মানুষ বিরল। এ উপজেলায় কার্ড ফেরত দেওয়ার ঘটনা ঘটেনি। বিধবা ওই নারীর সিদ্ধান্ত খুব ভালো লেগেছে। হিসাব বন্ধের জন্য আবেদন দিয়েছেন। শিগগিরই হিসাবটি বন্ধ করে দেওয়া হবে।তিনি আরও বলেন, ওই নারীর কাছে শিক্ষা নেওয়া উচিত; প্রয়োজন ছাড়া কোনো কিছু নেওয়া ঠিক নয়।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে ছাতিয়ানগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক মো. বাবলু, ১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মোমিন পাহালোয়ান রুস্তুম, ৩নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মাহাবুবুর রহমান ধলু, আওয়ামী লীগ নেতা চিকিৎসক হিটলার, সুজন, রিপন, রাজু পাহালোয়ান, তুহিন, মারুফ, যুবলীগ নেতা লাভলু ও ছাত্রলীগ নেতা হাসিন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

বক্তব্যে উপজেলার ছাতিয়ানগ্রাম ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ঘুষ দিয়ে কার্ড নিতে সবাই যখন ব্যস্ত, তখন তিনি (লাজিনা) ফেরত দিতে চান। এটা সত্যই আশ্চর্যজনক ঘটনা। তার ইউনিয়নে এমন ঘটনা কখনও ঘটেনি। তার এ সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানিয়ে তাকে সংবর্ধনা দেওয়া হয়েছে।

 

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

শারুন-নুসরাতের যোগাযোগ খতিয়ে দেখা হচ্ছে
সরকারি গাড়ি ও তেল খরচ করে ব্যক্তিগত কাজে ব্যবহার উপজেলা চেয়ারম্যান
১৯ জুন থেকে দেশে চীনের সিনোফার্ম ও বেলজিয়ামের টিকা দেওয়া হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী
নাসির-অমিসহ পাঁচজন গ্রেপ্তার হওয়া আমি অনেক খুশি:পরীমনির
নাসির উদ্দিন মাহমুদের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ তুললেন পরীমণি
ফরিদপুরে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর চাপ বাড়ছে,সিট নেই আইসিইউয়ে

আরও খবর


close