রবিবার, ১৬ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ২০.১৬°সে

চিরঘুমে চিত্রনায়িকা কবরী

রাজধানীর বনানী কবরস্থানে সমাহিত করা হলো কিংবদন্তি অভিনেত্রী সারাহ বেগম কবরীকে। দাফনের আগে সেখানে মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে দেওয়া হয় রাষ্ট্রীয় উদ্যোগে গার্ড অব অনার।
 
কয়েকদিন ধরেই লাইফ সাপোর্টে ছিলেন কিংবদন্তি অভিনেত্রী সারাহ বেগম কবরী। করোনায় আক্রান্ত হয়ে তার ফুসফুসের অবস্থা ভালো ছিল না। অবশেষে মহামারি কবল থেকে আর ফেরা হলো না। শুক্রবার দিবাগত রাত ১২টা ২০মিনিটে মারা যান সবার প্রিয় ‘মিষ্টি মেয়ে’। 
 
গত ৫ এপ্রিল কবরীর ক‌রোনা রি‌পোর্ট পজিটিভ এলে তাকে কুর্মিটোলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে দরকার হয় আইসিইউর। কুর্মিটোলা হাসপাতালে আইসিইউ খালি না থাকায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সহযোগিতায় গত ৮ এপ্রিল তাকে শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।
আইসিইউতে প্রায় এক সপ্তাহ চিকিৎসাধীন থাকার পর বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। নেওয়া হয় লাইফ সাপোর্টে। সেখানেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন দেশের জনপ্রিয় এ অভিনেত্রী।
 
উল্লেখ্য, ১৯৫০ সালের ১৯ জুলাই চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে জন্মগ্রহণ করেন কবরী। তার আসল নাম ছিল মিনা পাল। বাবা শ্রীকৃষ্ণদাস পাল এবং মা লাবণ্য প্রভা পাল। ১৯৬৩ সালে মাত্র ১৩ বছর বয়সে নৃত্যশিল্পী হিসেবে মঞ্চে উঠেছিলেন তিনি। তারপর টেলিভিশন ও সবশেষে সিনেমায়। কবরী বিয়ে করেন চিত্ত চৌধুরীকে। সম্পর্ক বিচ্ছেদের পর ১৯৭৮ সালে তিনি বিয়ে করেন সফিউদ্দীন সরোয়ারকে। ২০০৮ সালে তাদেরও বিচ্ছেদ হয়ে যায়। কবরী পাঁচ সন্তানের মা

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

মহাকাশে সিনেমার শুটিং: প্রতিযোগিতা আমেরিকা-রাশিয়ার
ডিএনসিসি হাসপাতালে দুই রোগীর শরীরে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট
ঈদের নামাজ নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষ, আহত ১০
বাংলাদেশে কখন কোথায় হবে ঈদ জামাত
জেমসকে নিয়ে নোবেলের পেজে ‘কুরুচিপূর্ণ’ স্ট্যাটাস, সোশ্যাল মিডিয়া তোলপাড়
বাড়ছে লকডাউন, বিচারিক ক্ষমতা পাচ্ছে পুলিশ

আরও খবর