শনিবার, ২৭শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ৩.৬৬°সে
সর্বশেষ:
যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটস বোস্টন প্রবাসী রোকেয়া খানম আর নেই ‘ওমিক্রন’ নিয়ে নিউইয়র্কে জরুরি অবস্থা বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর কার্যক্রমে যুক্তরাষ্ট্রের প্রশংসা কুমিল্লা বুড়িচং শিক্ষার্থী ও গরীব অসহায়দের মাঝে লোশন,ভ্যাসলিন  শীত বস্তু বিতরণ করোনার নতুন ধরন ‘ওমিক্রন’ জরুরি বৈঠকে মোদি আমেরিকা প্রেমিকের কাছে গেলেন রাশমিকা? চলমান সংকট নিরসনে সরকারের কাছে ৪ দফা দাবি জানিয়েছে হেফাজত শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়ার জন্য আইন পাস করার দাবি:সংসদে রুমিন ফারহানা সিমলার নতুন সিনেমা দেখতে ইউটিউবে দর্শকের ভিড়! ৭০৭ ইউপি নির্বাচন ৫ জানুয়ারি ওয়ানডে বিশ্বকাপের মূলপর্বে জায়গা পেল বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল তৃণমূল নিজেদের গুছিয়ে দিল্লির সিংহাসনে বসার স্বপ্ন দেখছে মমতা

প্রেমের টানে মেক্সিকান তরুণী বাংলাদেশে।।ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করে আদালতে বিয়ে

ভিওএনজে ডেস্ক:
ভাষা-সংস্কৃতি, ধর্ম-বর্ণের ভেদাভেদ ভুলে প্রেমের টানে সুদূর মেক্সিকো থেকে বাংলাদেশে ছুটে এসেছেন তরুণী। নাম তার ‘গ্লাডির্স নাইলি ট্রোরেবিয়ো মোরালিয়ার্স’ (৩২)।

২০১৯ সালে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বাংলাদেশি ছেলে রবিউল হাসান রোমনের (২৮) সঙ্গে তার পরিচয় হয়। পরিচয়ের সূত্র ধরে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্কে গড়ে উঠে।

এই সম্পর্কের টানে রোববার সকালে মেক্সিকোর ওই তরুণী বাংলাদেশে চলে আসে। রোমন জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলার পোগলদিঘা ইউনিয়নের চর পোগলদিঘা গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে।

সমাজে ভালোবাসার টানে ঘর ছাড়ার ঘটনা অহরহ ঘটলেও প্রেমের টানে দেশ ছাড়ার ঘটনা এ যুগে বিরল। রোববার সকালে মেক্সিকো থেকে বাংলাদেশের শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আসেন নাইলি। পরে রোমনের পরিবারের সদস্যদের সহায়তায় ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করে আদালতে তাদের বিয়ে হয়।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, মেক্সিকোর এক খ্রিস্টান পরিবারে জন্ম হয় নাইলির। মেক্সিকো ইউনিভার্সিটি থেকে (সাইনোক্লোজি) বিষয়ের ওপর পড়াশুনা শেষ করে বর্তমানে ফুড ব্যবসায়ী হিসেবে বিজনেস করেন। তার পিতা একজন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী।

২০১৯ সালে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রোমনের সঙ্গে তার পরিচয় হয়। প্রেমের টানে সব কিছু ছেড়ে সে চলে আসেন বাংলাদেশে। পরে সে ইসলামি শরীয়ত মোতাবেক ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন। ঢাকা জজকোর্টের মাধ্যমে তাদের ধর্মীয় রীতি অনুযায়ী ১ লাখ টাকার কাবিনের মাধ্যমে তাদের বিয়ে হয়। বিয়ের কাজ শেষে পরিবারের লোকজন তাকে গ্রামের বাড়িতে নিয়ে আসেন।

এ ব্যাপারে রবিউলের বাবা নজরুল ইসলাম বলেন, তাদের সম্পর্কের ব্যাপারে তার ছেলে তাদেরকে আগেই জানিয়ে ছিলেন। পরে তারা পরিবারের সবাই মিলে বিমানবন্দরে গিয়ে নাইলিকে গ্রহণ করেছেন। পরে জজকোর্টের মাধ্যমে বিবাহ সম্পন্ন করে ছেলের বউকে বাড়িতে নিয়ে আসেন।

এ ব্যাপারে রবিউল হাসান রোমন বলেন, আড়াই বছর ধরে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠেছে। সে প্রেমের টানে মেক্সিকো যাওয়া জন্য অনেক চেষ্টা করেছি। তবে যেতে পারেনি। অবশেষে করোনা পরিস্থিতি অনেকটা স্বাভাবিক হলে টুরিস্ট ভিসায় সে আমাকে বিয়ে করার জন্য বাংলাদেশে এসেছে।

এ নিয়ে পোগলদিঘা ইউপি চেয়ারম্যান সামস উদ্দিন জানান, মেক্সিকো থেকে এক তরুণী চর পোগলদিঘা গ্রামে এসেছে। তারা জজ কোর্টের মাধ্যমে ইসলামী শরীয়ত মোতাবেক কোর্ট-ম্যারেজ করে গ্রামের বাড়িতে ছেলের পরিবারের কাছে এসেছে।

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

অদক্ষ প্রবাসীরা দেশে ২৫ বিলিয়ন ডলার রেমিটেন্স পাঠিয়েছেন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী
যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট অ্যাওয়ার্ড পেলেন বাংলাদেশি শাহ হালিম
কাতারে বাংলাদেশ প্রেসক্লাব পুনর্গঠন
যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন ডিসির হোয়াইট হাউসের সামনে প্রবাসী সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের বিক্ষোভ
লন্ডনে সুপ্রবাসের সাথে মতবিময়ে এমপি শামীমা-বিত্তবান প্রবাসীদের প্রতি দেশে বিনিয়োগের আহ্বান
অল ইউরোপিয়ান বাংলা প্রেসক্লাবের নতুন কমিটি গঠন

আরও খবর


close