শনিবার, ২৫শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ২৯.৩২°সে
সর্বশেষ:
হজ মৌসুমে ভিজিট ভিসাধারীদের মক্কায় প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা কিভাবে এমপি আজিমকে খুন করা হয়, জানাল কসাই জিহাদ কী কারণে আল-আকসায় লুকিয়ে ছাগল নেওয়ার চেষ্টা তরুণীর শাহীনের আলিশান বাগানবাড়িতে যাতায়াত ছিল এমপি আজিমের যে কারণে এমপি আজিমের লাশ বিভিন্ন পার্টে ভাগ করে খুনিরা অবশেষে ট্রাম্পকেই সমর্থন দিলেন নিকি হ্যালি বাতাসে ভেঙে পড়ল নির্বাচনি প্রচার মঞ্চ, নিহত ৯ মোবাইল কেড়ে নেওয়ায় বাবা মা ও বোনকে হত্যা করল কিশোর নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা: আইসিসিকে নিষেধাজ্ঞার ইঙ্গিত যুক্তরাষ্ট্রের এসএসসি পরীক্ষা ফেব্রুয়ারির পরিবর্তে ডিসেম্বরে এমপি আজিমের হাড় মাংস আলাদা করে হলুদ মাখা হয় ১২০ কি.মি. গতিতে বাংলাদেশে আঘাত হানতে পারে ঘূর্ণিঝড় রেমাল

তীব্র আবাসন সংকটে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়

বেরোবি প্রতিনিধি:
বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় (বেরোবি) প্রতিষ্ঠার ১৫ বছর কেটে গেলেও আবাসন সুবিধা থেকে বঞ্চিত বেশিরভাগ শিক্ষার্থী। ফলে অনেকেই বাধ্য হয়ে অতিরিক্ত খরচে থাকছেন মেস ও বাসা-বাড়িতে। আবাসন সংকটের সুযোগ নিচ্ছে মেস ও বাড়ি মালিকরা। ইচ্ছে মত ভাড়া বৃদ্ধি করছেন তারা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ, তথ্য ও প্রকাশনা বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের ছয়টি অনুষদের ২২টি বিভাগে প্রায় দশ হাজার শিক্ষার্থী অধ্যায়নরত। অপর দিকে আবাসিক হল রয়েছে মাত্র চারটি।যার মধ্যে ১০ তলা বিশিষ্ট শেখ হাসিনা ছাত্রী হল নির্মাণাধীন। বাকি তিনটি হল ছেলেদের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু হলে আসন সংখ্যা ৩০৪ টি,শহীদ মুখতার এলাহী হলে আসন সংখ্যা ২৪০টি ও মেয়েদের জন্য শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলে আসন সংখ্যা ৩৪২টি।

দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী সজিব মিয়া বলেন,বিশ্ববিদ্যালয় জীবনের দেড় বছর প্রায় শেষ। কিন্তু হলে এখনও সিট পাইনি।হলে সিট সংখ্যা খুবই কম যার ফলে হলে সিট পাওয়া যাচ্ছে না। আমাদের হল সংখ্যা আরো বৃদ্ধি করা হোক।

সদ্য অনার্স শেষ করা শিক্ষার্থী জাকের হোসেন পাশা বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন শিক্ষার্থী হিসেবে আবাসিক হলে সিট না পাওয়া সত্যি অনেকটা আক্ষেপ ও খারাপ লাগার। বিশ্ববিদ্যালয় জীবন শেষের পথে হলেও তবু হলে বৈধ পন্থায় সিট পাইনি। প্রায় ৬০০ কিলোমিটার পাঁড়ি দিয়ে যখন স্বপ্ন ছোঁয়ার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হই তখন একজন শিক্ষার্থী হিসেবে আবাসনের অনিশ্চয়তায় ভুগতে হয়, যা অনেক চ্যালেঞ্জের।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আরও একাধিক শিক্ষার্থী বলেন, বৈধভাবে হলে শিক্ষার্থী ওঠানোর ব্যাপারে প্রশাসন উদাসীন। যারা রাজনীতি করে তারাই কেবল হলে ওঠার সুযোগ পায়। যার ফলে আমরা সাধারণ শিক্ষার্থীরা এই সুযোগ থেকে বঞ্চিত।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল প্রভোস্ট বিজন মোহন চাঁকী ঢাকা ওয়েভকে বলেন, আবাসন সংকটের কারণে আমাদের প্রায় ৯০ শতাংশ শিক্ষার্থী হলের সিট পাচ্ছে না। তাদের অনেক ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে। আমরা তাদের প্রতি সহানুভূতিশীল। আমরা বার্ষিক যে বাজেট পাই তা দিয়ে হল তৈরি করা সম্ভব নয়। হল তৈরির জন্য প্রয়োজন বিশেষ বাজেট। এছাড়া আবাসন সংকটের বিষয়টি ইউজিসিকে চিঠি হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

কিভাবে এমপি আজিমকে খুন করা হয়, জানাল কসাই জিহাদ
শাহীনের আলিশান বাগানবাড়িতে যাতায়াত ছিল এমপি আজিমের
যে কারণে এমপি আজিমের লাশ বিভিন্ন পার্টে ভাগ করে খুনিরা
এসএসসি পরীক্ষা ফেব্রুয়ারির পরিবর্তে ডিসেম্বরে
এমপি আজিমের হাড় মাংস আলাদা করে হলুদ মাখা হয়
ফের বাড়ল এইচএসসির ফরম পূরণের সময়

আরও খবর