শনিবার, ২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ৩.৬৮°সে
সর্বশেষ:
বিএনপি নেতাদের সঙ্গে মার্কিন উপসহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠক ভারত-বাংলাদেশ বন্ধুত্ব যেন চিরস্থায়ী হয় : প্রধানমন্ত্রী বিদ্যুতে ভর্তুকি কমাতে সমন্বয় জরুরি : কাদের ঢাকায় এসেছে মার্কিন প্রতিনিধি দল ট্রাফিক সিগন্যাল সচল করতে আইজিপিকে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ আমাকে জেলে পাঠাতে পারে: জার্মান গণমাধ্যমকে ড. ইউনূস দেশের প্রথম এনাটমি অলিম্পিয়াডে বিজয়ী চমেকের দুই শিক্ষার্থী পাবনার মাঝ নদীতে আটকে পড়া ফেরি ১২ ঘণ্টা পর উদ্ধার ইউক্রেনের যুদ্ধ থেকে যুক্তরাষ্ট্র বিপুল মুনাফা করছে: মার্কিন গণমাধ্যম বরিশালে ইন্টার্ন চিকিৎসকদের বিক্ষোভ ঢাকায় সুপ্রিম কোর্টের সম্মেলনে রাষ্ট্রপতি ও ভারতের প্রধান বিচারপতি আর্জেন্টিনার দুটি প্রীতি ম্যাচের সূচি ঘোষণা

টানা কর্মবিরতিতে যাচ্ছেন বাংলাদেশের রেলওয়ের রানিং স্টাফরা।। ট্রেন বন্ধের শঙ্কা

অনলাইন ডেস্ক:

বাংলাদেশে রোববার (২৭ আগস্ট) মধ্যরাত থেকে টানা কর্মবিরতিতে যাচ্ছেন রেলওয়ের রানিং স্টাফরা। ফলে সারা দেশে ট্রেন চলাচল বন্ধ হওয়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে।

মূল বেতনের সঙ্গে রানিং অ্যালাউন্স যোগ করে পেনশন প্রদান এবং আনুতোষিক সুবিধা দেওয়ার বিষয়ে জটিলতা নিরসন না হওয়ায় পূর্বঘোষিত এমন সিদ্ধান্তে অনড় বাংলাদেশ রেলওয়ে রানিং স্টাফ ও শ্রমিক কর্মচারীরা।

রোববার রাত ১২টা ১ মিনিট থেকে সব ট্রেন চলাচল বন্ধ রাখার ঘোষণা এখনো জারি রয়েছে। এমন অবস্থায় রেলওয়ের রানিং স্টাফদের ঘোষণা অনুযায়ী কর্মবিরতিতে সারা দেশে ট্রেনের শিডিউলে বিপর্যয়ের আশঙ্কা তৈরি হয়েছে।

রোববার সন্ধ্যায় বাংলাদেশ রেলওয়ে রানিং স্টাফ ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মো. মুজিবুর রহমান যুগান্তরকে বলেন, আমাদের দাবি এখনো মানা হয়নি। আন্দোলন চলবে, চলছে। এর আগে গত ৫ দিন আগে রেলমন্ত্রীর সঙ্গে আমরা বসেছি, তিনি আমাদের দাবি মেনে নেননি। ওই সময় রেল সচিবসহ রেলের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। আমাদের দাবি অনুযায়ী মাইলেজ সমস্যা সামাধান না হওয়ায় রোববার রাত ১২টা ১ মিনিট থেকে সব ট্রেনচালক, গার্ডসহ রানিং স্টাফ কর্মবিরতি করবেন। কোনো ট্রেনে কেউ উঠবে না। কেউ ট্রেন চালাবে না।

তিনি বলেন, আমি এখন সরকারের একটি বিশেষ সংস্থার অফিসে রয়েছি। আমরা আমাদের বক্তব্য তুলে ধরছি। একটু পরে বের হয়ে, ওই সংস্থার সঙ্গে কি কি বিষয়ে আলোচনা হয়েছে তা জানাবো। আমাদের সাফ কথা, দাবি মানা না হলে আন্দোলন চলবে। ট্রেন চলাচল বন্ধ রেখে কর্মবিরতিতে অবস্থান করব।

মূল বেতনের সঙ্গে রানিং অ্যালাউন্সের বাড়তি অর্থ এবং সেই অনুযায়ী পেনশন প্রদানের দাবিতে এ কর্মসূচি ঘোষণা করে বাংলাদেশ রেলওয়ে রানিং স্টাফ ও শ্রমিক কর্মচারী সমিতি।

ব্রিটিশ রেল আইন অনুযায়ী চলন্ত ট্রেনে দায়িত্ব পালন করা কর্মীদের মূল বেতনের সঙ্গে অতিরিক্ত কাজের জন্য বাড়তি অর্থ প্রদান করা হয়। এটি মাইলেজ প্রথা নামে পরিচিত। আর মূল বেতন অনুযায়ী প্রাপ্য পেনশন থেকে ৭৫ শতাংশ বেশি অর্থ দেওয়া হয়। রানিং স্টাফরা এভাবেই বেতন ও পেনশন পেয়ে আসছিলেন ।

কিন্তু ২০২১ সালে রানিং স্টাফদের মাইলেজ সুবিধা সীমিত করে প্রজ্ঞাপন জারি করে অর্থ মন্ত্রণালয়। সেখানে পেনশনে পাওয়া অতিরিক্ত ৭৫ শতাংশ অর্থও বাতিল করা হয়। এতেই রানিং স্টাফরা ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন।

পূর্বের সুযোগ-সুবিধা বহালের জন্য তারা দুই বছর ধরে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে আসছেন। কিন্তু এর কোনো সুরাহা না হওয়ায় আজ মধ্যরাত থেকে কর্মবিরতিতে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে কেন্দ্রীয় সংগঠন। এ বিষয়ে শ্রমিক নেতাদের সঙ্গে রেলের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের দেনদরবার চলছে।

উল্লেখ্য, রানিং স্টাফদের মধ্যে রয়েছেন ট্রেনচালক, সহকারী চালক, টিটিই ও ট্রেন চালক।

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

বিএনপি নেতাদের সঙ্গে মার্কিন উপসহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠক
ভারত-বাংলাদেশ বন্ধুত্ব যেন চিরস্থায়ী হয় : প্রধানমন্ত্রী
বিদ্যুতে ভর্তুকি কমাতে সমন্বয় জরুরি : কাদের
ঢাকায় এসেছে মার্কিন প্রতিনিধি দল
ট্রাফিক সিগন্যাল সচল করতে আইজিপিকে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ
আমাকে জেলে পাঠাতে পারে: জার্মান গণমাধ্যমকে ড. ইউনূস

আরও খবর