মঙ্গলবার, ১৬ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ৮.৩৪°সে
সর্বশেষ:
কিশোরগঞ্জে ১৪ কিলোমিটার দৃষ্টিনন্দন বৈশাখী আলপনা! আইপিএলে ফর্মে থাকায় ছুটি বাড়ল মোস্তাফিজের রাঙ্গামাটি কাপ্তাই চিংম্রং এ মারমা সম্প্রদায়ের মহা সাংগ্রাঁই জল উৎসব কাপ্তাইয়ে শিশু নির্যাতন পরোয়ানা ভুক্ত আসামী আটক ইসরাইলে হামলা ইরানের, নীরবে পিছু হটছে যুক্তরাষ্ট্র! ১৯ এপ্রিল দুবাই পৌঁছাবেন নাবিকরা, সেখান থেকে ফিরবেন দেশে কত মুক্তিপণে ছাড়া পেল এমভি আবদুল্লাহ ইরানের হামলায় যে ক্ষয়ক্ষতি হলো ইসরায়েলের মঙ্গল শোভাযাত্রা নিয়ে যা বললেন শায়খ আহমাদুল্লাহ জলদস্যুদের হাতে জিম্মি বাংলাদেশি সেই ২৩ নাবিক মুক্ত সুনামগঞ্জে একুশে টেলিভিশনের ২৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত নানা আয়োজনে সুনামগঞ্জে বর্ষ বরণ পালন

কারাগারে প্রেম, প্যারোলে মুক্তি পেয়ে বিয়ে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

কারাগারে পরিচয়, সে পরিচয় থেকে বন্ধুত্ব-প্রেম। সবশেষে প্রেম গড়াল পরিণয়ে। প্যারোলে মুক্তি পেয়ে বিয়ে করলেন দুই কয়েদি। গতকাল বুধবার এ ঘটনা ঘটেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের পূর্ব বর্ধমানের মন্তেশ্বরের কুসুমগ্রামে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম সংবাদ প্রতিদিনের খবরে বলা হয়, গতকাল মানবাধিকার সংগঠন পশ্চিমবঙ্গ গণতান্ত্রিক অধিকার রক্ষা সমিতির আয়োজনে বিবাহ সম্পন্ন করেন দুই কয়েদি আবদুল হালিম ও শাহানারা খাতুন। এর মধ্যে হালিম ধর্ষণ মামলায় আট বছর ধরে বর্ধমান কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে (কারাগার) আছেন। তিনি প্রতিবেশী রাজ্য আসামের দোরাং জেলার দলগাঁও থানা এলাকার রঙ্গনগারোপাথার গ্রামের বাসিন্দা। অন্যদিকে, শাহানারা খুনের মামলায় ছয় বছর ধরে একই কারাগারে আছেন। তিনি পশ্চিমবঙ্গের বীরভূম জেলার নানুর থানার উচকারণ-বালিগড়ির বাসিন্দা।

এই দুই বন্দি জানান, গত তিন বছর আগে তাদের দুজনের পরিচয় হয়। এরপর গড়ে ওঠে বন্ধুত্ব। একপর্যায়েঢ একে-অপরের প্রেমেও পড়ে যান তারা। এরপর তারা বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হতে চান। দুই পরিবারের সদস্যরা জানতে পেরে তাতে সম্মতিও দেন।

এরপরই তারা মানবাধিকার সংগঠনের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। সংগঠনের সঙ্গে আলোচনা করেন হাসিমের বাবা আবদুস সাত্তার। বিয়ের অনুমতি দেওয়ার জন্য গত ১৬ জুন পশ্চিমবঙ্গের কারামন্ত্রী অখিল গিরির দ্বারস্থ হয় তিনি। আবেদন মঞ্জুর হতেই বিয়ের আয়োজন শুরু হয়। মন্তেশ্বরের কুসুমগ্রামে আইনিভাবে তারা বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন।

ইতোমধ্যে বীরভূমের উদ্দেশে পাড়ি দিয়েছেন নবদম্পতি। তারা জানান, ‘আমরা এখন মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছি। কারণ জেলের বাইরে বেরিয়ে নতুন এক সংসার পাতব।’

পশ্চিমবঙ্গ গণতান্ত্রিক অধিকার রক্ষা সমিতির অন্যতম কর্মকর্তা শামসুদ্দিন শেখ বলেন, ‘আবদুল হালিম ধর্ষণের মামলা ও শাহানারা খুনের মামলায় অভিযুক্ত হয়ে বর্ধমান কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে বন্দি রয়েছে। দুজনেই বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হতে চেয়েছিল। তাই তাদের পরিবার কারামন্ত্রীর দ্বারস্থ হয়। তারা প্যারোলে মুক্তি পায়। এদিন তারা আইনি বিবাহ সারেন। আগামী ১৬ জুলাই তারা ফের সংশোধনাগারে ফিরে যাবেন।’

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

ইসরাইলে হামলা ইরানের, নীরবে পিছু হটছে যুক্তরাষ্ট্র!
১৯ এপ্রিল দুবাই পৌঁছাবেন নাবিকরা, সেখান থেকে ফিরবেন দেশে
কত মুক্তিপণে ছাড়া পেল এমভি আবদুল্লাহ
ইরানের হামলায় যে ক্ষয়ক্ষতি হলো ইসরায়েলের
জলদস্যুদের হাতে জিম্মি বাংলাদেশি সেই ২৩ নাবিক মুক্ত
দুই শতাধিক ড্রোন-ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছে ইরান

আরও খবর