রবিবার, ২৬শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ১৮.৮°সে
সর্বশেষ:
প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিয়ে ‘রেমাল’ আঘাত হানবে রোববার সন্ধ্যায় বঙ্গবাজার মার্কেটসহ ৪ প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী ঢাকায় কোনো বস্তি থাকবে না, দিনমজুররাও ফ্ল্যাটে থাকবে: প্রধানমন্ত্রী ইউক্রেনকেই সিদ্ধান্ত নিতে হবে, কীভাবে তারা যুদ্ধ চালাবে: যুক্তরাষ্ট্র ঘূর্ণিঝড় রেমাল: বরগুনায় জোয়ারের পানিতে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত আইপিএল ফাইনাল: কাল কেকেআরের মুখোমুখি হচ্ছে সানরাইজার্স আটক ৩৯ কিশোরকে মুচলেকায় ছাড়িয়ে নিল অভিভাবকরা হজ মৌসুমে ভিজিট ভিসাধারীদের মক্কায় প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা কিভাবে এমপি আজিমকে খুন করা হয়, জানাল কসাই জিহাদ কী কারণে আল-আকসায় লুকিয়ে ছাগল নেওয়ার চেষ্টা তরুণীর শাহীনের আলিশান বাগানবাড়িতে যাতায়াত ছিল এমপি আজিমের যে কারণে এমপি আজিমের লাশ বিভিন্ন পার্টে ভাগ করে খুনিরা

একাদশে ভর্তির নীতিমালা প্রকাশ

অনলাইন ডেস্ক:
একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির নীতিমালা প্রকাশ করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ।

রোববার প্রকাশিত একাদশে ভর্তির নীতিমালায় জানানো হয়, আগামী ১০ আগস্ট থেকে ২০ আগস্ট পর্যন্ত প্রথম পর্যায়ের আবেদন করতে পারবেন শিক্ষার্থীরা।

এ বছর এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় পাস করা শিক্ষার্থীদের কলেজে ভর্তি প্রক্রিয়া শুরু হবে আগামী ২৬ সেপ্টেম্বর থেকে, চলবে ৫ অক্টোবর পর্যন্ত। আর ক্লাস শুরু হবে ৮ অক্টোবর।

এবারও শিক্ষার্থীদের ফলের ভিত্তিতে অনলাইনে ভর্তির আবেদন করতে হবে। তিন পর্যায়ে আবেদন গ্রহণ করা হবে।

রোববার বিকালে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব সোলেমান খানের সই করা নীতিমালা প্রকাশ করা হয়।

নীতিমালা অনুযায়ী, আগামী ১০ আগস্ট থেকে একাদশ শ্রেণির অনলাইনে ভর্তি আবেদন শুরু হবে। তিন ধাপে নেওয়া হবে আবেদন। প্রথম ধাপে ২০ আগস্ট পর্যন্ত আবেদনের সুযোগ পাবে শিক্ষার্থীরা।

সর্বশেষ তৃতীয় ধাপে ২১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত আবেদন করার সুযোগ পাবে শিক্ষার্থীরা। ২৬ সেপ্টেম্বর থেকে কলেজে ভর্তি শুরু হয়ে চলবে ৫ অক্টোবর পর্যন্ত। ক্লাস শুরু হবে ৮ অক্টোবর।

এর মধ্যে ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস, ৬ সেপ্টেম্বর জন্মাষ্টমী এবং ২৮ সেপ্টেম্বর ঈদে মিলাদুন্নবীর জন্য অনলাইন সার্ভিস ও কল সেন্টার বন্ধ থাকবে।

এর আগে গত সোমবার কলেজে ভর্তির নীতিমালা চূড়ান্তকরণ সভায় এই নীতিমালার অনুমোদন দেওয়া হয়।

যেভাবে আবেদন করা যাবে

অনলাইনে www.xiclassadmission.gov.bd এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা একাদশে ভর্তির আবেদন করতে পারবেন।

সার্ভারটি ১০ আগস্ট ওপেন করা হবে। আবেদন করার আগে শিক্ষার্থীদের আবেদন ফি জমা দিতে হবে। সেই ফি কোনো ব্যাংকে না গিয়েও বিকাশের মাধ্যমে পরিশোধ করা যাবে। তারপর পছন্দের কলেজ বাছাই করে অনলাইনে সাবমিট করতে হবে। শিক্ষার্থীরা শুধু অনলাইনে আবেদন করতে পারবে।

অনলাইনে আবেদনের ক্ষেত্রে ১৫০ টাকা আবেদন ফি জমা সাপেক্ষে একজন শিক্ষার্থী সর্বনিম্ন পাঁচটি এবং সর্বোচ্চ দশটি কলেজ/সমমানের প্রতিষ্ঠানের জন্য পছন্দক্রমের ভিত্তিতে আবেদন করতে পারবে। একজন শিক্ষার্থী যতগুলো কলেজে আবেদন করবে তার মধ্য থেকে শিক্ষার্থীর মেধা, কোটা (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে) ও পছন্দক্রমের ভিত্তিতে একটি কলেজে তার অবস্থান নির্ধারণ করা হবে।

আবেদন করার সময়সূচি

বোর্ড সূত্র জানিয়েছে, প্রথম ধাপের আবেদন গ্রহণ করা হবে ১০ থেকে ২০ আগস্ট পর্যন্ত। ৩১ আগস্ট পুনর্নিরীক্ষণের আবেদন করে ফল বদলানো শিক্ষার্থীদের আবেদনের সুযোগ দেওয়া হবে। ৫ সেপ্টেম্বর প্রথম ধাপের ফল প্রকাশ করা হতে পারে। ৭ থেকে ১০ সেপ্টেম্বর নির্বাচন নিশ্চয়নের সুযোগ পাবে প্রথম ধাপে নির্বাচিত শিক্ষার্থীরা।

১২ থেকে ১৪ সেপ্টেম্বর দ্বিতীয় ধাপের আবেদন নিয়ে ফল প্রকাশ করা হতে পারে ১৬ সেপ্টেম্বর। প্রথম মাইগ্রেশন ফল প্রকাশ করা হবে ১৬ সেপ্টেম্বর। ১৭ ও ১৮ সেপ্টেম্বর দ্বিতীয় ধাপে নির্বাচিতরা নির্বাচন নিশ্চয়নের সুযোগ পাবে। আর ২০ ও ২১ সেপ্টেম্বর তৃতীয় পর্যায়ের আবেদন নিয়ে ২৩ সেপ্টেম্বর ফল প্রকাশ করা হবে।

২৪ ও ২৫ সেপ্টেম্বর তৃতীয় ধাপের নির্বাচন নিশ্চয়ন চলবে। আর ২৬ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হয়ে ৫ অক্টোবর পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের ভর্তি চলবে। ক্লাস শুরু হবে ৮ অক্টোবর।

এবারও প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপে মাইগ্রেশনের সুযোগ থাকছে। এবার ভর্তি ফি সর্বোচ্চ সাড়ে ৮ হাজার টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

ভর্তির যোগ্যতা

২০২১, ২০২২ ও ২০২৩ সালে দেশের যে কোনো শিক্ষা বোর্ড এবং উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এসএসসি বা সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবে।

উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অন্যান্য বছরে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরাও বোর্ডে ম্যানুয়ালি আবেদন করতে পারবে। বিদেশি কোনো বোর্ড বা প্রতিষ্ঠান থেকে সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা ঢাকা বোর্ডের মাধ্যমে তার সনদের মান নির্ধারণের পর ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবে।

একাদশে ভর্তির ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠানের মোট ৯৩ শতাংশ আসন সকলের জন্য উন্মুক্ত থাকবে, যা মেধার ভিত্তিতে নির্বাচিত হবে। শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও অধীনস্থ দপ্তর বা সংস্থায় কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সন্তানদের জন্য ২ শতাংশ কোটা এবং মোট আসনের ৫ শতাংশ মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের জন্য সংরক্ষিত থাকবে। এসব আসনে শিক্ষার্থী না থাকলে সেখানে মেধা কোটার মাধ্যমে ভর্তি করানো হবে।

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিয়ে ‘রেমাল’ আঘাত হানবে রোববার সন্ধ্যায়
বঙ্গবাজার মার্কেটসহ ৪ প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
ঢাকায় কোনো বস্তি থাকবে না, দিনমজুররাও ফ্ল্যাটে থাকবে: প্রধানমন্ত্রী
ঘূর্ণিঝড় রেমাল: বরগুনায় জোয়ারের পানিতে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত
আটক ৩৯ কিশোরকে মুচলেকায় ছাড়িয়ে নিল অভিভাবকরা
কিভাবে এমপি আজিমকে খুন করা হয়, জানাল কসাই জিহাদ

আরও খবর