সোমবার, ১৯শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ৭.৬৭°সে

বিধিনিষেধের পরও মালয়েশিয়ায় দূতাবাসের পাসপোর্ট বিতরণ

করোনা মহামারি রোধে চলছে লকডাউন। ১৩ জানুয়ারি থেকে শুরু হওয়া লকডাউনের ৩য় দিন অতিবাহিত হচ্ছে। এছাড়া যারা লকডাউন (এসওপি) অমান্য করবে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেয়া হবে বলেও ঘোষণা দিয়েছে দেশটির সংশ্লিষ্টরা। এছাড়া লকডাউনের মাঝেও বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা।

গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩২১১ জন। মৃত্যুবরণ করেছেন ৮ জন। এর আগের দিন আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৩,৩৩৭ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ১৫ জন। সর্বমোট মালয়েশিয়ায় আক্রান্তের সংখ্যা ১৫১০৬৬ জন। এ পর্যন্ত মৃত্যুবরণ করেছেন মোট ৫৮৬ জন।

এদিকে মালয়েশিয়ার সরকার স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং সিস্টেম-এসওপি ঘোষণার মাধ্যমে অধিক গণজমায়েতকে নিষিদ্ধ করেছে। এমন পরিস্থিতিতে প্রবাসী বাংলাদেশিদের হাতে দ্রুত পাসপোর্ট পৌঁছে দিতে সরকারের বিধিনিষেধ মেনে লকডাউনের মধ্যে গত তিন দিনে প্রায় আড়াই হাজারেরও অধিক পাসপোর্ট বিতরণ করা হয়েছে বলে দূতাবাস সূত্রে জানা গেছে।

এছাড়া সম্প্রতি বিধিনিষেধের মধ্যেও তিন প্রদেশে প্রায় দেড় হাজারেরও অধিক পাসপোর্ট বিতরণ করা হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

গত বছরের ১৮ মার্চ থেকে মালয়েশিয়ায় চলছে বিধিনিষেধ। সরকার বাধ্যতামূলক আরোপ করে রেখেছে স্বাস্থ্যবিধি, সামাজিক দূরত্বসহ বিভিন্ন বিধিনিষেধ। এ বিধিনিষেধের মধ্যেই পাসপোর্ট কার্যক্রম সময়োপযোগী করতে অ্যানালগ থেকে অনলাইনের মাধ্যমে ডিজিটালাইজেশন করা হয়েছে। দূতাবাস সংশ্লিষ্টরা বলছেন, প্রবাসীদের পাসপোর্ট প্রয়োজনীয়তাকে গুরুত্ব দিয়ে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে করোনা মহামারিতে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দূতাবাসের কর্মীরা পাসপোর্ট বিতরণ করে যাচ্ছেন।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, মালেয়শিয়ায় গত নভেম্বর থেকে অবৈধ অভিবাসীদের বৈধকরণ প্রক্রিয়া রিক্যালিব্রেশন নামে বৈধকরণ প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। এ প্রক্রিয়ায় বৈধ হতে নতুন পাসপোর্টের আবেদন বৃদ্ধি পেয়েছে আগের চেয়ে কয়েকগুণ। বিদেশি দূতাবাসের মধ্যে একমাত্র মালয়েশিয়া ডাকযোগে পাসপোর্টের আবেদন গ্রহণ চালু রেখেছে। পাসপোর্ট বিতরণে অনলাইন বুকিং সিস্টেমসহ পাসপোর্ট সংক্রান্ত যেকোনো সমস্যা সমাধানের বিষয়টি সহজ করা হয়েছে।

এ বিষয়ে পাসপোর্ট অ্যান্ড ভিসা শাখার প্রধান মো. মশিউর রহমান তালুকদার জানান, মালয়েশিয়া সরকার একটানা লকডাউন ঘোষণার পাশাপাশি কন্ডিশনাল মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার (সিএমসিও), স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং সিস্টেম (এসওপি) জারি রেখেছে। এসব সরকারি বিধিমালা অনুসরণ করে পাসপোর্ট সার্ভিস স্বাভাবিক রাখা কঠিন চ্যালেঞ্জ।

মালয়েশিয়ায় নবনিযুক্ত রাষ্ট্রদূত মো. গোলাম সারওয়ার বলেন, পাসপোর্ট দ্রুত ডেলিভারি দিতে ইতোমধ্যে হাইকমিশনে ছয়জনকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে এবং আরো লোকবল নিয়োগ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। মালয়েশিয়া পোস্ট অফিসের সঙ্গে আমাদের আলোচনা হয়েছে, যাতে দূরে কর্মরত কর্মীদের কাছে সহজে পাসপোর্ট পৌঁছে দেয়া যায়।

বৈধকরণ নিয়ে রাষ্ট্রদূত জানান, রিক্যালিব্রেশন প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ নিয়োগদাতা বা মালিকনির্ভর। না জেনে না বুঝে কারও সঙ্গে আর্থিক লেনদেন না করার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। পাশাপাশি চলমান লকডাউনে সরকারের বেঁধে দেয়া বিধিনিষেধ পালনেরও প্রবাসী বাংলাদেশিদের আহ্বান জানান রাষ্ট্রদূত গোলাম সারওয়ার।

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

কানাডায় বিদেশি শিক্ষার্থীদের ওয়ার্ক পারমিট দেওয়ার উদ্যোগ
৪০ সহস্রাধিক বাংলাদেশিসহ সাড়ে ৮ লক্ষাধিক তরুণ-তরুণীর আমেরিকায় নাগরিকত্ব লাভ
ইউরোপে বাংলাদেশিদের অ্যাসাইলাম আবেদন কঠিন হচ্ছে
কাতার এয়ারওয়েজে এক বছর পর্যন্ত ফ্রী রিফান্ডের সুযোগ
৩১ শে ডিসেম্বর ইইউ নাগরিকদের ইউকেতে প্রবেশাধিকার বন্ধ হচ্ছে
বাংলাদেশ থেকে ১২ হাজার পোশাক শ্রমিক নেবে জর্ডান

আরও খবর